ফারক্রাই ৩ - Farcry 3


সিস্টেম রিকুয়ারমেন্টঃ 

  • সিপিইউঃ ২.৬ জিএইচজেড
  • র‍্যামঃ ২ জিবি 
  • জিপিইউঃ ১ জিবি
  • ওএসঃ উইন্ডোজ ৭,৮,১০
  • DX : ১০


স্টোরিঃ

জেসন, যে মূল চরিত্র, সে তার ভাই রাইলি আর কিছু বন্ধুবান্ধব নিয়ে ব্যাংকক যায় ।ওখানে এয়ার ডাইভিং করার সময় ওরা এনিমিদের হাতে ধরা পরে। গেমের মেইন ভিলেইন 'ভাস' জেসনের বন্ধুদের জিম্মি করে মুক্তিপন আদায়ের পায়তারা করে, পরে দাস হিশেবে বিক্রি করার প্লান করে । তখন জেসন স্থানীয় এক জন তাতাউ যোদ্ধা ডেনিশের সাহায্যে একে একে দুঃসাহসী অভিজানের মাধ্যমে একে একে তার প্রিয়জনদের উদ্ধার করে । এবং এই বন্ধুর পথে যতই বাধা আসুক তা জেসন কে থামাতে পারে না। ছোট ভাই রাইলিকে উদ্ধারের মাধ্যমে স্টোরি শেষ হয় । শেষটায় একটা চমক আছে , সেটা নাহয় চমকই থাকুক । সত্যি বলতে এরকম সাস্পেন্স এ ভরা জমাট কাহিনী আমি খুব কম গেমেই দেখেছি ।

গেমপ্লেঃ
এক কথায় চমৎকার । এই গেমে আপনি হ্যান্ড টু হ্যান্ড কমব্যাট থেকে শুরু করে পিস্তল,ছুরি,রাই ফেল,বাজুকা ,স্নাইপার রাইফেল ,ফ্লেম থ্রয়ার , তীর ধনুক সহ আরও অনেক অস্ত্র ব্যাবহার করতে পারবেন । ছুরি দিয়ে করতে পারেন কুইক কিল । চাইলে তামিল সিনেমা স্টাইল এ গোলাগুলি করে খেলতে পারেন অথবা চাইলে ফুল স্তেলথ মোড এ খেলতে পারেন টু শব্দটিও না করে ।গেমের সাথে সাথে আপনার স্কিল আর অওেপন আপগ্রেড করতে পারবেন । হান্টিং করার মজাটাও ভাল লেগেছে । ভাসের বিভিন্ন আউট পোস্ট দখল করলে বিভিন্ন সাইড মিশন ওপেন হয় । বিভিন্ন ধরনের চ্যালেঞ্জ ও আছে । অবশ্য গুরুত্বপূর্ণ মিশনে বাঘ ভাল্লুক আমকে কয়েকবার খেয়ে ফেলায় বিরক্ত লেগেছিল । এছাড়া গেম এর বিভিন্ন স্টেজ এ প্যারা নরমাল আর Delusional কিছু ইন্টার ফেজ ছিল । সব মিলিয়ে গেম প্লে আমার কাছে খুব ভাল লেগেছে 


সবাইকে ঈদের আগাম শুভেচ্ছা ।




সিস্টেম রিকুয়ারমেন্টঃ 

  • সিপিইউঃ ২.৬ জিএইচজেড
  • র‍্যামঃ ২ জিবি 
  • জিপিইউঃ ১ জিবি
  • ওএসঃ উইন্ডোজ ৭,৮,১০
  • DX : ১০


স্টোরিঃ

জেসন, যে মূল চরিত্র, সে তার ভাই রাইলি আর কিছু বন্ধুবান্ধব নিয়ে ব্যাংকক যায় ।ওখানে এয়ার ডাইভিং করার সময় ওরা এনিমিদের হাতে ধরা পরে। গেমের মেইন ভিলেইন 'ভাস' জেসনের বন্ধুদের জিম্মি করে মুক্তিপন আদায়ের পায়তারা করে, পরে দাস হিশেবে বিক্রি করার প্লান করে । তখন জেসন স্থানীয় এক জন তাতাউ যোদ্ধা ডেনিশের সাহায্যে একে একে দুঃসাহসী অভিজানের মাধ্যমে একে একে তার প্রিয়জনদের উদ্ধার করে । এবং এই বন্ধুর পথে যতই বাধা আসুক তা জেসন কে থামাতে পারে না। ছোট ভাই রাইলিকে উদ্ধারের মাধ্যমে স্টোরি শেষ হয় । শেষটায় একটা চমক আছে , সেটা নাহয় চমকই থাকুক । সত্যি বলতে এরকম সাস্পেন্স এ ভরা জমাট কাহিনী আমি খুব কম গেমেই দেখেছি ।

গেমপ্লেঃ
এক কথায় চমৎকার । এই গেমে আপনি হ্যান্ড টু হ্যান্ড কমব্যাট থেকে শুরু করে পিস্তল,ছুরি,রাই ফেল,বাজুকা ,স্নাইপার রাইফেল ,ফ্লেম থ্রয়ার , তীর ধনুক সহ আরও অনেক অস্ত্র ব্যাবহার করতে পারবেন । ছুরি দিয়ে করতে পারেন কুইক কিল । চাইলে তামিল সিনেমা স্টাইল এ গোলাগুলি করে খেলতে পারেন অথবা চাইলে ফুল স্তেলথ মোড এ খেলতে পারেন টু শব্দটিও না করে ।গেমের সাথে সাথে আপনার স্কিল আর অওেপন আপগ্রেড করতে পারবেন । হান্টিং করার মজাটাও ভাল লেগেছে । ভাসের বিভিন্ন আউট পোস্ট দখল করলে বিভিন্ন সাইড মিশন ওপেন হয় । বিভিন্ন ধরনের চ্যালেঞ্জ ও আছে । অবশ্য গুরুত্বপূর্ণ মিশনে বাঘ ভাল্লুক আমকে কয়েকবার খেয়ে ফেলায় বিরক্ত লেগেছিল । এছাড়া গেম এর বিভিন্ন স্টেজ এ প্যারা নরমাল আর Delusional কিছু ইন্টার ফেজ ছিল । সব মিলিয়ে গেম প্লে আমার কাছে খুব ভাল লেগেছে 


সবাইকে ঈদের আগাম শুভেচ্ছা ।





শেয়ার করুন

লেখকঃ

আমি তাওসিফ তুরাবি, অনলাইনাম (অনলাইন + নাম) ব্লগার তাওসিফ। এখন, ২০১৬ পর্যন্ত আমি ১৬ বছরের এক কিশোর। পড়াশোনা করি শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজে। টেক ব্লগ লিখতে ভালবাসি। সাইন্স ফিকশন আর গল্প লিখতে পছন্দ করি।  জিআর+ ব্লগের এর একজন প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন।
আমাদের একটা ওয়েব ডেভেলপার ফার্ম আছে যার নাম জিআর+ আইটি বাংলাদেশ
এছাড়া আমার ব্যাক্তিগত ব্লগ রয়েছে। আমার ফেসবুক আইডিতে আমার সাথে সর্বক্ষণ যোগাযোগ করতে পারবেন। 


পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট