জিটিএ স্যান আন্ড্রেস - GTA San Andreas

বাংলার জিটিএ সিরিজের সবচেইয়ে জনপ্রিয় গেইম ভাইস সিটির পর আসে স্যান আন্ড্রেস।

আর আজ আমি ডাউনলোড লিংকে গেইমটির পিসি সংস্করণ মাত্র ১ মেগায় এবং এনড্রয়েড সংস্করণটি মাত্র ৩ মেগাবাইটে নিয়ে এলাম!


বাস্তবের আমেরিকায় যেমনটি রাস্তায় রাস্তায় গ্যাঙ্গবাজী চলে সেটা, তারপর ড্রাগ এবং অন্যান্য অপরাধ যে ব্যাপক ভাবে প্রচলিত সেটা এবং পুলিশদের দুর্নীতি। 
তবে সবকিছুই ৯০ দশকের আমেরিকার সংঙ্কৃতির উপর নির্মিত।



নির্মাতা:
রকস্টার নর্থ



প্রকাশক:
রকস্টার গেমস,
ক্যাপকম (জাপানে)


ডিস্ট্রিবিউটর:
টেক ২ গেমস


সিরিজ:
গ্রান্ড থেফট অটো

ইঞ্জিণ:
রেন্ডারওয়্যার

খেলা যাবে:
প্লে-স্টেশন ২, পিসি, এক্সবক্স ৩৬০, এক্সবক্স এবং প্লে-স্টেশন ৩ কনসোলে


মুক্তি পেয়েছে:
অক্টোবর, ২০০৪ (প্লে-স্টেশন ২)
জুন, ২০০৫ (পিসি এবং এক্সবক্স),
অক্টোবর, ২০০৮ (এক্সবক্স ৩৬০),
নভেম্বর, ২০১০ (ম্যাক),
ডিসেম্বর, ২০১২ (প্লে-স্টেশন ৩),





সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস:

মাইক্রোসফট উইন্ডোজ এক্সপি সার্ভিস প্যাক ২
ডুয়াল কোর ১.৮ গিগাহাটস গতির প্রসেসর,
১ গিগাবাইট র‌্যাম,
২৫৬ মেগাবাইট গ্রাফিক্স,
ডাইরেক্ট এক্স ৯.০সি
৫ গিগাবাইট ফ্রি হার্ডডিক্স স্পেস।

স্টোরিলাইন:

কার্ল “সিজে” জণসন। ১৯৮৭ সালে তার ছোট ভাইয়ের খুনের পর তার উপর সন্দেহ এর প্রবল চাপ আসে। তাই সে লিবার্টি সিটিতে নতুন জীবন শুরু জন্য সরে পড়ে।
১৯৯২ সাল। ৫ বছর লিবার্টি সিটিতে গাড়ি চোর উপাধী নিয়ে থাকার পর হঠাৎ একদিন সিজের বড় ভাই সুইট এর ফোন আসে। ফোনে তার মায়ের মৃত্যুর খবর জানানো হয়। মৃত্যুর খবর শুনে আর দেরি না করে মায়ের শেষকৃত্যের জন্য সে আবারে ফিরে আসে হোমটাউন লস স্যানটসে।
লস স্যানটস বিমান বন্দর হতে ক্যাব নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে দুর্নীতিগ্রস্থ পুলিশ সদস্য টেমপেনি এবং পুলাস্কি সিজে তে আটক করে একজন পুলিশ অফিসারের খুনের দায়ে। মজার ব্যাপার হলো খুনটি মাত্র কয়েক মিনিট আগে করা হয়েছে। পুলিশ সদস্যদের মূল উদ্দেশ্য ছিলো সিজে কে তাদের বেআইনি কাজকর্মে ব্যবহার করা।
এরপর সিজে তার বাসায় ফিরে। তার বাসাটি গ্রুভ স্টিটে অবস্থিত। সেখানে ফিরে সিজে তার বড় ভাই সুইট এবং তার গ্যাঙ্গ মেমবার রাইডার, বিগ স্মোক এবং ওজি লগ এদের সাথে যুক্ত হয়ে গ্রুভ স্টিট পরিবারকে আবারো লস স্যানটস এর শক্তিশালী গ্যাঙ্গ বানানো কাজে লেগে পড়ে। এর মধ্যে সিজেকে তার প্রতিবেশী গ্যাঙ্গ ব্যালাস এবং ভেগোস এর সাথে যুদ্ধ, অস্ত্র এবং শিপের সাপ্লাই এবং তার এলাকায় নিষিদ্ধ কোকেইনের চালান বন্ধের কাজে লেগে পড়ে।
বেশ বড়সড় একটি গ্যাঙ্গ যুদ্ধে ঠিক আগে, সিজের বোন কেনডিল এর বয়ফ্রেন্ড চেসার সিজেকে ফোনের মাধ্যমে তার সাথে দেখা করতে বলে। চেসার সিজে কে একটি সবুজ গাড়ি দেখায়। গাড়িটি সাব্রি মোডেলের যেটি কিনা তার মায়ের খুনের সাথে জড়িয়ে আছে। তখন সিজে সেখানে বিগ স্মোক, রাইডার, অফিসার টেনপেনি এবং কিছু ব্যালাস গ্যাঙ্গ সদস্যদের দেখতে পায়। এরপরই সিজে বুঝতে পারে যে তার নিজেরই গ্যাঙ্গের সদস্য তার মায়ের খুনের জন্য দায়ী। এরপর আসে বড় গ্যাঙ্গ যুদ্ধ। তবে সেখানে সিজে পৌছাড়ে দেরি করে ফেলে।
সুইট গুরুতর আহত হয় এবং পুরো যুদ্ধ ক্ষেত্রটি পুলিশ ঘিরে ফেলে এবং সবাইকে গ্রেফতার করে। তবে সিজে কে গ্রেফতার করে সেই পুলিশ অফিসার টেনপেনি এবং পুলাস্কি। সিজের গ্রেফতার করে সীমান্ত উপকূলে ছেড়ে দেয়। এবং বিগ স্মোক এবং রাইডার এর কাছ থেকে দূরে থাকতে নাহলে আহত সুইট আর আহত অবস্থায় থাকবে না।
বাধ্য হয়ে স্যান এনড্রেসের সীমান্ত উপকূলে সিজে টেনপেনির বিভিন্ন কাজ করে দেয়। এর মধ্যে একজন কৃষক “দ্যা ট্রুথ” এর সাথে সিজের পরিচয় হয়। অন্যদিকে চেসার সিজে তার কাজিন ক্যাটালিনার সাথে দেখা করতে বলে। সিজে ক্যাটালিনার সাথে দেখা করে এবং তার সাথে যুক্ত হয়ে আন্ডারগ্রাউন্ড রেস প্রতিযোগীতায় অংশ নেয়। সেখানে সিজের সাথে দেখা হয় অন্ধ চাইনিজ লিডার ও জি মু ওরফে ওউজির সাথে। ‍প্রতিযোগীতায় সিজে স্যান ফিয়ারোতে একটি গ্যারেজ জিতে নেয় এবং সে তার বোন এবং চেসার কে নিয়ে স্যান ফিয়ারোতে শিফট করে। গ্যারেজটিকে একটিভ করার জন্য সিজে মেকানিক ডেওয়াইন এবং ইলেক্ট্রনিক এক্সপার্ট জিরোর সাহায্য নেয়।
স্যান ফিয়ারোতে সিজে ব্যস্ত নিজেকে পুনরায় প্রতিষ্ঠা করতে অন্যদিকে লস স্যানটসে এখন বিগ স্মোক এবং রাইডার পুরোদমে কোকেইনের ব্যবসা করছে। স্মোক এবং রাইডার এর সাথে সর্ম্পক রয়েছে এমন একটি লিডার যার নাম জিজি বি! সিজে জিজি বিকে হত্যার জন্য তার হয়ে কিছু কাজ করতে থাকে।
সময়ের আর্বতনে সিজে রাইডারকে খুন করতে এবং তার ফ্যাক্টরি ধ্বংস করতে সক্ষম হয়। এরপর জিজিবিকে খুন করে সিজে আন্ডারকভার সরকারী এজেন্ট মাইক এর খপ্পরে পড়ে!! মাইক সিজে তার ভাইয়ের জামিন দেখিয়ে বিভিন্ন কাজ করিয়ে নেয়।
অতপর ওইজির ফোর ড্রাগণ ক্যাসিনোর পার্টনার হয়ে সিজে গেমটির ব্যয়বহুল শহর লাস ভ্যানটুরাসে আগমণ করে। এখানে এসে সিজেকে বিভিন্ন মাফিরা পরিবারের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করতে হয়। ঘটনা চক্রে ভাইস সিটির চরিত্র কেন রোজেনবার্গকে তোমরা পাবে গেমটিতে!
অন্যদিকে টেনপেনি এবং পুলাস্কি আদালতে সেই বড় গ্যাঙ্গ যুদ্ধের জন্য সিজে দায়ী করে অফিসিয়াল ভাবে সিজেকে হত্যার জন্য নিয়ে আসে মরুভূমিতে। তবে সিজে উল্টে পুলাস্কিকে খুন করতে সক্ষম হয়।
এদিকে চেসার পুণরায় লস স্যানটসে ফিরে আসে এবং তার নিজস্ব গ্যাঙ্গ পুণঃপ্রতিষ্ঠার জন্য সিজের সাহায্য চায়। সিজের তার ভাইকে জেল হতে মুক্ত করিয়ে চেসারের সাহায্যের উদ্দেশ্যে আবারো লস স্যানটগে ফিরে আসে।
চেসারের গ্যাঙ্গকে পুণঃপ্রতিষ্ঠিত করে সিজের ভাই সুইট বিগ স্মোকের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হয়। স্মোক একটি পরিত্যাক্ত ড্রাগ ফ্যাক্টরি তথা বিল্ডিংয়ে লুকিয়ে আছে। সুইট এবং সিজে গেমটির ফাইলান মিশনের জন্য তৈরি হয়।
জটিল ফাইনাল মিশনের প্রথম অংশে সিজেকে কয়েকটি কঠিন ধাপ পেরোতে হবে স্মোককে খুন করার জন্য। স্মোককে খুন করার পর অফিসার টেমপেনি স্মোকের সমস্ত টাকা লুট করে একটি ফায়ার সার্ভিসের ট্রাকে করে পালিয়ে যাবার সময় সুইট ট্রাকের পিছনে কোনো ভাবে ঝুলে থাকতে সক্ষম হয়। সিজের ট্রাকের পিছন পিছন গাড়ি নিয়ে আসতে থাকে। ঘটনাচক্রে টেনপেনির মৃত্যুা হয় সড়ক দুর্ঘটনায়।
এরপর বাংলা ছিনেমার মতো সিজের পরিবারে নেমে আসে সুখের আভাস!!! হাহাহাহা!!
গেমটির মূল কাহিনী শেষ হয় সিজের একটি ডায়ালগ দিয়ে “ দেখে আসি রাস্তার কি হচ্ছে”।

মুল লেখকঃ ফাহাদ হোসেন



ডাউনলোডঃ

পিসি সংস্করণঃ
এনড্রয়েড সংস্করণঃ


যেভাবে ইন্সটল করবেনঃ
> পিসিতে প্রথমে কেজিবি সফটটি ইন্সটল করে ফাইলটি আনজিপ করুন এবং গেমটি স্বাভাবিক নিয়মে ইন্সটল করুন।
> আর এন্ড্রয়েডে প্রথমে এপিকে ফাইলটি ইন্সটল করে com.rockstargames.gtasa ফোল্ডারটি আপনার ফোনের Android > Obb ফোল্ডারে কপি পেষ্ট করুন এবং গেমটি উপভোগ করুন।


শেয়ার করুন

লেখকঃ

আমি তাওসিফ তুরাবি, অনলাইনাম (অনলাইন + নাম) ব্লগার তাওসিফ। এখন, ২০১৬ পর্যন্ত আমি ১৬ বছরের এক কিশোর। পড়াশোনা করি শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজে। টেক ব্লগ লিখতে ভালবাসি। সাইন্স ফিকশন আর গল্প লিখতে পছন্দ করি।  জিআর+ ব্লগের এর একজন প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন।
আমাদের একটা ওয়েব ডেভেলপার ফার্ম আছে যার নাম জিআর+ আইটি বাংলাদেশ
এছাড়া আমার ব্যাক্তিগত ব্লগ রয়েছে। আমার ফেসবুক আইডিতে আমার সাথে সর্বক্ষণ যোগাযোগ করতে পারবেন। 


পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট