তিন গোয়েন্দা রিভিউ (পর্ব-৪): কঙ্কাল দীপ

আসসালামু আলাইকুম।
স্কেলিটন আইল্যান্ড বা বাংলায় কঙ্কাল দীপ। সুন্দর একটি দীপ। সেখানে ছিলো একটি সুন্দর পার্ক। অনেক আগে সেখানে ঝড়ের মধ্যে নাগরদোলায় চড়তে গিয়ে মারা গিয়েছিলো এক মেয়ে। তার ভূত দেখা গিয়েছিলো এমন গুজব আছে। নাগরদোলায় নাকি চড়তে দেখা যায় তাকে। বন্ধ হয়ে যায় পার্ক। কিন্তু মাঝখানে অনেকদিন দেখা যায়নি সেই ভূত। আবার ঘনঘন দেখা দিতে শুরু করে সেই ভূত।
ছবির শ্যুটিংয়ের একটি দলের বিভিন্ন যন্ত্রপাতি চুরি যাচ্ছে। গার্ড রেখে ঠেকানো যাচ্ছে না চুরি। সন্দেহ পাপালো হারকুস নামের এক গ্রেসান ছেলের উপর।
অনেক আগের এক জলদস্যুর মোহর ডুবে আছে অথবা লুকানো আছে সেখানে অথবা সমুদ্রে। হঠাৎ দু-একটা মোহর পাওয়া যায়। কিন্তু কোথায় গুপ্তধন দীর্ঘদিনেও পাওয়া যায়নি। এমন অনেক রহস্য লুকিয়ে আছে কঙ্কাল দীপে। কিন্তু রহস্যের সমাধান কি?
১ম ভলিউমের দ্বিতীয় কেস কঙ্কাল দীপ।
https://www.dropbox.com/s/jycymrnmnfc9jwj/volume1-1.rar?m
ভলিউম-১, ডাউনলোড করতে ছবিতে ক্লিক করুন



শেয়ার করুন

লেখকঃ

আমি দুইটি করে হাত, পা কান, চোখ বিশিষ্ট একজন মানুষ। নাম তাহমিদ হাসান মুত্তাকী। আমি একজন মুসলিম। বাংলাদেশের অধিবাসী। বয়স ১৫ বছর। নবম শ্রেণিতে পড়ি।। গ্রিন রেঞ্জারস+ এর প্রতিষ্ঠাতাদের একজন। আমাকে ফেসবুকে পেতে এখানে যান।

Image result for facebook.icon 30x30   Image result for Google Plus.icon 30x30

পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট