নন-চ্যাটার রিলে সার্কিট


মাঝে মাঝে আমরা রিলে চ্যাটার এর মত সমস্যায় পড়ি, তখন দুটি ক্যাপাসিটর দ্বারা এই সমস্যা সমাধা করা যায়।

এই সার্কিট একটি পিএনপি ট্রানজিস্টার বেস করে বানানো হয়েছে।

পিএনপি ট্রানজিস্টার নেগেটিভ কারেন্ট কালেক্ট করে এমিট করে। একে সুইচ করতে পজিটিভ কারেন্ট দরকার হয়।

তাই এখানে এলডিআর কে পজিটিভ বায়াস ও ভেরিয়াবল রিসিস্টর বা পট কে নিগেতিভ বায়াসে দেওয়া হয়েছে। যখন এলডিআরে আলো পরে তখন রোধ কমে গিয়ে বিদ্যুৎ প্রবাহ বেড়ে যায় ও নিগেতিভ কারেন্ট ওভাররাইড হয়ে ট্রানজিস্টার সুইচ হয়ে যায়।


আর রিলে চ্যাটার বন্ধ করার জন্য দুই বায়াসে ক্যাপাসিটর গুলি কেবল ভোল্টেজ গেইন করে এবং সাথে সাথে এমিট করে দেয়। তাই চ্যাটার হওয়ার মত অসংলগ্ন বায়াস থাকে না।


এতে এটি নাইট সেন্সর হিসেবে কাজ করে। এবার যদি এলডিআর নিগেতিভ ও পট পজিটিভ বায়াসে দেওয়া হয় তবে এটি লাইট সেন্সর বা ডে সেন্সর হিসেবে কাজ করবে।














যে যে কম্পোনেন্ট ব্যাবহার হয়েছে,

  • এলইডি
  • ১০০কে পট
  • এলডিআর
  • বিসি৫৪৭ ট্রাঞ্জিস্টর
  • ৬ ভোল্ট সাপ্লাই
  • ১০০০ মাইক্রো ফ্যারাড দুইটি ক্যাপাসিটর
  • ৬ ভোল্ট রিলে সুইচ
  • 4007 পিএন ডায়োড


শেয়ার করুন

লেখকঃ

আমি তাওসিফ তুরাবি, অনলাইনাম (অনলাইন + নাম) ব্লগার তাওসিফ। এখন, ২০১৬ পর্যন্ত আমি ১৬ বছরের এক কিশোর। পড়াশোনা করি শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজে। টেক ব্লগ লিখতে ভালবাসি। সাইন্স ফিকশন আর গল্প লিখতে পছন্দ করি।  জিআর+ ব্লগের এর একজন প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন।
আমাদের একটা ওয়েব ডেভেলপার ফার্ম আছে যার নাম জিআর+ আইটি বাংলাদেশ
এছাড়া আমার ব্যাক্তিগত ব্লগ রয়েছে। আমার ফেসবুক আইডিতে আমার সাথে সর্বক্ষণ যোগাযোগ করতে পারবেন। 


পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট