উইকিপিডিয়া

আসসালামু আলাইকুম,
কেমন আছেন? আজ আপনাদের উইকিপিডিয়া নিয়ে কিছু বলবো এবং জানাবো।

উইকিপিডিয়া (http://wikipedia.org) একটি উন্মুক্ত বিশ্বকোষ।
উইকিপিডিয়া একটি বহুভাষীক বিশ্বকোষ যাতে বিশ্বের যে কেউ লেখতে বা সম্পাদনা করতে পারেন।
অর্থাৎ এটি বর্তমানে অনেকগুল ভাষায় প্রচলিত আছে। বর্তমানে বাংলা ভাষা সহ ২৮৭ টি ভাষায় উইকিপিডিয়া সাইট রয়েছে।

এর প্রতিষ্ঠাতারা বলেছিলেন, এটি পৃথিবীর প্রত্যেকটি মানুষের কাছে তার নিজ মাতৃভাষায় বিনামূল্যে উচ্চমান সম্পন্ন জ্ঞানভান্ডার পৌছে দেওয়ার একটা প্রচেষ্টা।

উইকিপিডিয়া পরিচালনা করে “উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন” নামের একটি অলাভজনক প্রতিষ্ঠান।
 যারা 
উইকিসনারি (Wiktionary, এটি উইকিপিডিয়া ভিত্তিক ডিকশনারি),
উইকিবুক (Wikibook, উইকিপিডিয়া ভিত্তিক বইয়ের সম্ভার),
উইকিসোর্স (Wikisource, নানা জিনিশের উৎস ও তথ্যর সম্ভার) সহ উইকিপিডিয়ার আরও বিভিন্ন সহপ্রকল্প নিয়ন্ত্রণ করেন।
উইকিপিডিয়া সাইটটি চলে উইকিপিডিয়ান (যারা উইকিপিডিয়ায় অবদান রাখে ও তথ্য ইনপুট করেন) গ্রুপের দ্বারা।

এর নিবন্ধগুলো লেখক জিএনিউ ফ্রি ডকুমেন্টেশন লাইসেন্স (GFDL) এর আওতায় প্রকাশ করেন। তাই ঐ লাইসেন্স এর আওতায় এর নিবন্ধগুলো বিনামূল্যে ব্যবহারযোগ্য।



উইকিপিডিয়ার জন্ম ২০০১ সালে।

জিমি ওয়েলস আর ল্যারি স্যাঙ্গার নামে দুই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রবাসী ২০০০ সালে প্রথমে শুরু করেছিলেন ন্যুপিডিয়া আর এরপর ২০০১ সালের ১৫ই জানুয়ারী তারা চালু করেন উইকিপিডিয়া।এটাই এর জন্মদিন।




২০০১ সালের ১৫ জানুয়ারি আনুষ্ঠানিকভাবে শুধুমাত্র ইংরেজি ভাষার জন্য http://www.wikipedia.com ওয়েবসাইটটি চালু করা হয়। সেই সাথে উইকিপিডিয়া ন্যুপিডিয়া থেকে আলাদা একটি স্বতন্ত্র প্রতিষ্ঠানের মত কাজ শুরু করে। পরে উইকিমিডিয়া ফাউন্ডেশন নামে মূল সংস্থাটি চালু করায় উইকিপিডিয়ার ডোমেইন বর্তমানের wikipedia.org তে পরিবর্তিত হয়। কারণ .org ডোমেইটি অব্যবসায়িক ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। আর উইকিপিডিয়ার প্রধান উদ্দেশ্যই ছিল সবার জন্য উন্মুক্ত তথ্য ভাণ্ডার তৈরি করা, কোন ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে ব্যবহারের জন্য নয়।

সারা বিশ্বে সবার মাঝে তথ্য ছড়িয়ে দেবার জন্য ইংরেজি ভাষার পাশাপাশি অন্যান্য ভাষার ব্যবহারকারীদের জন্য ২০০১ সালের মে মাসে ইংরেজি উইকিপিডিয়ার সাথে কাতালান, চীনা, ওলন্দাজ, এসপারেন্টো, ফরাসী, জার্মান, হিব্রু, ইতালীয়, জাপানি, পর্তুগীজ, রুশ, স্পেনীয় এবং সুইডিশ ভাষায় উইকিপিডিয়া চালু করা হয়। এর কিছু দিন পরেই যোগ করা হয় আরবি ও হাঙ্গেরীয় এবং পোলিশ। ঐ বছরের শেষে আফ্রিকানস, নরওয়েজীয় এবং সার্বোক্রোয়েশীয়রা উইকিপিডিয়ায় যোগদানের ঘোষণা দেয়।


সবার মাঝে বিজ্ঞান এবং অন্যান্য তথ্য পৌঁছে দেবার জন্য ২০০৩ সালে টেক্স (Tex) ব্যবহার করে উইকিপিডিয়ায় গাণিতিক সূত্র সহ বিজ্ঞান বিষয়ক অন্যান্য তথ্য যুক্ত করা হয়। এর ফলে খুব তারাতারি ইংরেজি উইকিপিডিয়া ১০০,০০০ নিবন্ধের মাইলফলক অতিক্রম করে। একই বছর উইকিপিডিয়ায় লোগো হিসেবে ‘সবার জন্য তথ্য’ এই কথাটি নিশ্চিত করার জন্য “পৃথিবীর ছবি” যুক্ত করা হয়।

উইকিপিডিয়ার সার্ভারে সমস্যা!!!

২০১০ সালের মার্চ মাসের ২৪ তারিখে উইকিপিডিয়ার ইউরোপিয়ান সার্ভার অতিরিক্ত গরমের কারণে বন্ধ হয়ে যায়। এই বিপদ থেকে রক্ষা পেতে সাময়িক ব্যবস্থা হিসেবে ফ্লোরিডার অতিরিক্ত সার্ভারগুলো চালু করার চেষ্টা করা হয় কিন্তু তাও সম্ভবপর হয়নি। যার ফলে উইকিপিডিয়ার সম্পূর্ণ সিস্টেম সারাবিশ্বে অকেজো হয়ে পড়ে। এ সমস্যাটি দ্রুতই সমাধান করা হয়। এরপর উইকিপিডিয়া নতুন সংস্করণের দিকে ঝুঁকে পরে। যার ফলশ্রুতিতে ২০১০ সালে ১৩ মে সাইটটির নতুন সংস্করণ প্রকাশ করা হয়। নতুন বৈশিষ্ট্যগুলোর মধ্যে ছিল- নতুন লোগো, নতুন নেভিগেশন টুল সহ আরও নতুন কিছু সুবিধা। যারা পুরনো সংস্করণটি ব্যবহার করতে চান তাদের জন্য আগেরটি ব্যবহারের সুবিধাও রাখা হয়েছিল।

উইকিপিডিয়ার বিভিন্ন বিষয়ের ওপর কাজ করার জন্য ২০০৮ সালে গঠিত বিভিন্ন উইকিপ্রকল্প তাদের নিজ নিজ বিষয়ের নিবন্ধগুলো তৈরি ও সমৃদ্ধ করতে থাকে। এপ্রিলে উইকিপিডিয়ার ১ কোটিতম নিবন্ধটি তৈরি হয় এবং এর কয়েক মাস পরেই ইংরেজি উইকিপিডিয়ার নিবন্ধ সংখ্যা ২৫ লাখ ছাড়িয়ে যায়। ২০০৯ সালের আগস্ট মাসে সব উইকিপিডিয়ার সর্বমোট নিবন্ধ সংখ্যা দাঁড়ায় ১ কোটি ৪০ লাখ। সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে গ্রিনিচ মান সময় অনুযায়ী আগস্ট মাসের ১৭ তারিখ ৪টা বেজে ৫ মিনিটে ইংরেজি উইকিপিডিয়ার ৩০ লক্ষ তম নিবন্ধটি প্রকাশ পায়। যার ফলে উইকিপিডিয়া বিপুল পরিমাণ তথ্য ভাণ্ডারে পরিণত হয়। ওই বছরেরই মে মাসে ইংরেজি উইকিপিডিয়ার বিতর্ক নিরসণ কমিটি ‘চার্চ অব সায়েন্টোলিজ’ এর আইপি ঠিকানাগুলো থেকে ইংরেজি উইকিপিডিয়ায় সম্পাদনা সুবিধা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয়। এছাড়াও ওই দলভুক্ত কিছু সদস্যের নির্দিষ্ট কিছু নিবন্ধে সম্পাদনার ওপরেও বাধা আরোপ করে। সিদ্ধান্তের কারণ হিসেবে কমিটি তার বক্তব্যে উল্লেখ করে যে, উভয় পক্ষই উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে পরস্পরকে আক্রমণ করে চলেছে এবং ফলে ক্ষতির শিকার হচ্ছে অন্যান্য ব্যক্তিদের লেখা নিবন্ধগুলো।
বর্তমানে বাংলা ভাষা সহ ২৮৭ টি ভাষায় উইকিপিডিয়া সাইট রয়েছে। সবচেয়ে বড় ইংরেজি ভাষার উইকিপিডিয়া (http://en.wikipedia.org) এর নিবন্ধ কৃত তথ্যের সংখ্যা ২১ লক্ষেরও বেশি।

bn.wikipedia.org


শেয়ার করুন

লেখকঃ

আমি তাওসিফ তুরাবি, অনলাইনাম (অনলাইন + নাম) ব্লগার তাওসিফ। এখন, ২০১৬ পর্যন্ত আমি ১৬ বছরের এক কিশোর। পড়াশোনা করি শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজে। টেক ব্লগ লিখতে ভালবাসি। সাইন্স ফিকশন আর গল্প লিখতে পছন্দ করি।  জিআর+ ব্লগের এর একজন প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন।
আমাদের একটা ওয়েব ডেভেলপার ফার্ম আছে যার নাম জিআর+ আইটি বাংলাদেশ
এছাড়া আমার ব্যাক্তিগত ব্লগ রয়েছে। আমার ফেসবুক আইডিতে আমার সাথে সর্বক্ষণ যোগাযোগ করতে পারবেন। 


পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট