এইচটিএমএলঃ পর্ব- ৩ঃ এইচটিএমএল- এর ট্যাগ ও অ্যাট্রিবিউট গুলো

তৃতীয় অধ্যায়
এইচটিএমএল ট্যাগ ও অ্যাট্রিবিউট


</>


আমার মতে যে কোডগুলো এইচটিএমএলের বিভিন্ন কন্টেন্টকে একটি কাঙ্ক্ষিত রুপ প্রদান করে তাই ট্যাগ।একে বৈশিষ্ট্য ধারণকারীও বলা যায়।

আর,ট্যাগগুলোর আচরণ ও ধরন কিরুপ হবে,সেটা নির্ধারণ করে অ্যাট্রিবিউট।

প্রতিটি ট্যাগের জন্য আলাদা আলাদা অ্যাট্রিবিউট আছে।

এইচটিএমএল শেখা তেমন কঠিন কিছু না। তোমার খালি প্রয়োজন একটি কম্পিউটার, ইন্টারনেট সংযোগ সহ।

আগে বিভিন্ন ট্যাগ ও অ্যাট্রিবিউট আয়ত্তে আনার পর তুমি সিএসএসে শান দিতে পারবে।

এখন নমুনা দেখাই,

<b></b>

এখানে, <> হল একটা ট্যাগের শুরু। এবং </> হল শেষ। এইচটিএমএল ভাষায় স্টার্ট ট্যাগ এবং এন্ড ট্যাগ।

আবার,
<b color="red"></b>

এখানে কালার (color) হল অ্যাট্রিবিউট এবং কালার অ্যাট্রিবিউটের মান হল red.
এর মান হবে কোনও রঙের নাম বা হেক্সাডেসিম্যাল কোড নম্বর দিয়ে। এই হেক্সাডেসিম্যাল কালার কোড এখানে পাবে সকল রঙের জন্য।

এবার অনেকগুলো ট্যাগ আর অ্যাট্রিবিউট সহ ট্যাগ দেই, দেখো চেস্টা করে।

<font color="red">Bangladesh</font>
<font color="green">Bangladesh</font>
<font color="yellow">Bangladesh</font>
<b>Bangladesh</b>

একটি ওয়েবসাইটের ডিজাইন কিরুপ হবে তা ঠিক করে সিএসএস। CSS হল Cascading Style Sheets। নামেই বোঝা যাচ্ছে এটা স্টাইল বিষয়ক

কিছু করে। সিএসএস নিয়ে পরে আলোচনা করা যাবে। এখন ট্যাগ গুলো আলোচনা করি।

এখন আমরা বিভিন্ন ট্যাগ ব্যাখ্যা করবো।


 



শেয়ার করুন

লেখকঃ

আমি তাওসিফ তুরাবি, অনলাইনাম (অনলাইন + নাম) ব্লগার তাওসিফ। এখন, ২০১৬ পর্যন্ত আমি ১৬ বছরের এক কিশোর। পড়াশোনা করি শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজে। টেক ব্লগ লিখতে ভালবাসি। সাইন্স ফিকশন আর গল্প লিখতে পছন্দ করি।  জিআর+ ব্লগের এর একজন প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন।
আমাদের একটা ওয়েব ডেভেলপার ফার্ম আছে যার নাম জিআর+ আইটি বাংলাদেশ
এছাড়া আমার ব্যাক্তিগত ব্লগ রয়েছে। আমার ফেসবুক আইডিতে আমার সাথে সর্বক্ষণ যোগাযোগ করতে পারবেন। 


পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট