ডোমেইন সমাচার

আসসালামুআলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ ওয়া বারকাতুহ। আশা করি মহান আল্লাহর অশেষ রহমতে সকলেই ভালো আছেন। আজকে আমি আমার জানা সকল তথ্য দিয়ে ডোমেইন সম্পর্কে  একটি গুরুত্বপূর্ণ  পোস্ট করতে যাচ্ছি । আশা করছি সকলের কাছেই পোস্টটি ভালো লাগবে।
কি কি থাকছে এই পোস্টেঃ আমি ধাপে ধাপে ডোমেইন সম্পর্কিত  সকল বিষয় এই পোস্টে তুলে ধরব। শুরুতেই দেখে নেই যা যা থাকছে এই পোস্টে ।
  • ডোমেইন কি ?
  • ডোমেইন কি হোস্টিং এর মত?
  • ডোমেইনের অংশ সমূহ
  • ডোমেইন কেন ব্যবহার করব ?
  • ডোমেইন ছাড়া কি ওয়েবসাইট পাবলিশ করা যায় ?
  • ডোমেইনের প্রকারভেদ
  • ফ্রী ডোমেইন কি
  • পেইড ডোমেইন
  • TLD
  • gTLD
  • ccTLD
  • প্রোমো ডোমেইন
  • প্রিমিয়াম ডোমেইন
  • প্রোমো ডোমেইন ও প্রিমিয়াম ডোমেইনের মধ্যে তফাৎ
  • আমার কেমন ডোমেইন চাই ?
  • কার কাছে থেকে ডোমেইন নিবো ?
  • উপসংহার
সূচি শেষ এবার মূল কথায় ফিরে আসি।

domain

ডোমেইন কি ?
প্রথমেই আমাদের মনে একটা প্রশ্ন আসে ডোমেইন জিনিসটা কি? খায় না মাথায় দেয় :P
আসলে ডোমেইন খায়ওনা মাথায়ও দেয় না। এটা হল কোন ওয়েবসাইটের ঠিকানা । এখনও অনেকেই বুঝেননাই । আরও সহজ ভাবে বলি। আপনি আপনার বাসায় থাকেন ঠিক তো। কেউ আপনাকে জিজ্ঞাস করল আপনি কই থাকেন ? আপনি কি উত্তর দিবেন? আমি বাসায় থাকি !!! না আপনি এই উত্তর দিবেননা, আপনি আপনার বাসার ঠিকানা দিবেন। ঠিক তেমনি ডোমেইন হল আপনার ওয়েবসাইটের ঠিকানা। যা দ্বারা সহজেই কেউ আপনার ওয়েবসাইট খুজে পাবে। যেমনঃ google.com, facebook.com, sulovbd.com, techtunes.com.bd একেকটা ডোমেইন। আর এই ডোমেইন সবসময় একটা ওয়েবসাইটকে আরেকটা ওয়েবসাইট থেকে আলাদা করে রাখে। অর্থাৎ আপনার ডোমেইন দিয়ে শুধু আপনার ওয়েবসাইটেই প্রবেশ করা যাবে।

ডোমেইন কি হোস্টিং এর মত?
নাহ। ডোমেইন আর হোস্টিং আলাদা জিনিস। তবে একটা ছাড়া আরেকটা কোন কাজের না। আপনি একেকজন হোস্টিং প্রোভাইডারের কাছে একেকরকম হোস্টিং সার্ভিস পাবেন এবং তাদের নিজস্ব সার্ভার বা অন্যান্য সিস্টেম থাকে। যার কতৃত্ত শুধু তার থাকে। কিন্তু ডোমেইন হল একটা ইউনিক ঠিকানা আর এইটা পুরা পৃথিবীতে বা অনলাইন জগতে সব জায়গায় একই থাকবে। আর এই ডোমেইন গুলো একটা নির্দিষ্ট প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সরবরাহ করা হয়ে থাকে। আর আপনি বিভিন্ন হোস্টিং প্রোভাইডারের কাছে চাইলেই হোস্টিং স্পেস পেতে পারেন তবে একটা ডোমেইন যেকোনো একজন ডোমেইন প্রোভাইডারের কাছ থেকে বিক্রি হয়ে গেলে তা আর পাবেননা।

ডোমেইনের অংশ সমূহ
ডোমেইন আবার দুইটা অংশ। আমি উপরে কয়েকটা ডোমেইনের উদাহরণ দিয়েছি। এদের প্রত্যেকটারই দুইটা অংশ আছে। এগুলো হলঃ  ডোমেইন নেম ও  ডোমেইন এক্সটেনশন
উদাহরণ স্বরূপঃ google.com এর google হল ডোমেইন নেম আর com হল ডোমেইন এক্সটেনশন । আবার techtunes.com.bd এর techtunes হল ডোমেইন নেম আর com.bd হল ডোমেইন এক্সটেনশন ।
এখন প্রশ্ন হল আমি আমার ডোমেইনের নামও টেকটিউনস রাখতে চাই। কিভাবে রাখব??? সহজ সমাধান আছে। একটু লক্ষ্য করে দেখেন আমি যে টেকটিউনস এর কথা বলছি তার এক্সটেনশন com.bd । আপনি অন্য কোন এক্সটেনশন দিয়ে আপনার ডোমেইনের নাম টেকটিউনস রাখতে পারবেন। আপনি বিভিন্ন ডোমেইন প্রোভাইডারের কাছেই এই এক্সটেনশন পেতে পারেন। তবে techtunes.com.bd কিন্তু পাবেননা।

ডোমেইন কেন ব্যবহার করব ?
আপনার একটা ওয়েবসাইট আছে এইটা সবাইকে বললেন কিন্তু যখন কেউ আপনাকে জিজ্ঞাস করবে আপনার ওয়েবসাইট কোনটা তখন কি বলবেন ? আমার ওয়েবসাইট দেখতে হইলে বাসায় আইসো দেখামুনে :P
এই কথা বলবেন???? না। আপনার বিবেক থাকুক আর না থাকুক এই সামান্য বুদ্ধিতো আছে যে এইটা বইলা সবাইকে নিজের সাইট দেখানো সম্ভব না এইটা আপনি বুঝেন। :)
তাই সবাইকে আপনার ওয়েবসাইট দেখাইতে চাইলে ডোমেইন ব্যবহার করতে হবেই।

ডোমেইন ছাড়া কি ওয়েবসাইট পাবলিশ করা যায় ?
এইটা ভালো প্রশ্ন। আপনি জেনে খুশি হবেন যে আপনার নিজস্ব কোনো ডোমেইন না থাকলেও আপনি ওয়েবসাইট পাবলিশ করতে পারবেন। তবে এজন্য আপনাকে আইপি এড্রেস এর শরণাপন্ন হতে হবে। শুধুমাত্র আইপি এড্রেস ব্যবহার করে ওয়েবসাইট পাবলিশ করা কতটা বোকামি আর প্যারাদায়ক সেটা শুধুমাত্র আইপি দ্বারা সাইট পাবলিশ করলেই বুঝবেন। তবে আমি এইটা বলতে চাচ্ছিনা যে আইপি ছাড়াই ডোমেইন ব্যবহার করা হয়। আসলে ডোমেইন আইপিকে আর সহজ ভাবে তুলে ধরে ।

ডোমেইনের প্রকারভেদ
ডোমেইন বিভিন্ন প্রকারের হতে পারে।
দামের হিসেবে ডোমেইন দুই প্রকার। ফ্রী ডোমেইন ও পেইড ডোমেইন।
ফ্রী ডোমেইনঃ
যে ডোমেইন গুলা ফ্রীতে পাওয়া যায় সেগুলা হল ফ্রী ডোমেইন। বর্তমানে বহুল ব্যবহৃত ফ্রী ডোমেইন গুলো হল .tk, .ga, .gq, .ml, .cf
পেইড ডোমেইনঃ
যে ডোমেইন গুলা পেতে হলে টাকা খরচ করতে হয় সেইগুলাই হইল পেইড ডোমেইন। কয়েকটা বহুল ব্যবহৃত পেইড ডোমেইন হল .com, .net, .org, .info, .co, .in, .asia ইত্যাদি

TLD এর ভিত্তিতে ডোমেইন আরও বেশ কয়েকপ্রকার। যেমনঃ gTLD, ccTLD ইত্যাদি
TLD
এখন কথা হইল এই TLD দিয়া কি বুঝায়। সোজা কথায় TLD মানে  Top Level Domain অর্থাৎ যে ডোমেইন গুলার ডিমান্ড বেশি। যে গুলা বহুল ব্যবহৃত ও জনপ্রিয়।

gTLD
gTLD এর মানে হইল General Top Level Domain। অর্থাৎ সাধারণ টপ লেভেল ডোমেইন। সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত gTLD হল .com আর অন্যান্য gTLD গুলা হইল .net, .info, .org, .biz ইত্যাদি

ccTLD
ccTLD মানে  Country Code Top Level Domain। প্রতিটি দেশের জন্য আলাদা ডোমেইন আছে। এগুলা Country Code Top Level Domain। এগুলা দ্বারা ওই দেশকে বুঝায়। যেমনঃ .bd দ্বারা ডোমেইনটা বাংলাদেশের তা বুঝায় , .in ভারতের কান্ট্রি ডোমেইন (যদিও যেকেউ এই ডোমেইন ব্যবহার করতে পারে), .uk যুক্তরাজ্যের কান্ট্রি ডোমেইন। এই ডোমেইন গুলা সবসময় ২ অক্ষরের হয়ে থাকে। আর এই ডোমেইন গুলার একটা অন্যতম বিশেষত্ব হল এই ডোমেইন ব্যবহার করে আপনি সহজেই ওই দেশকে টার্গেট করে আপনার ওয়েবসাইটে ওই দেশের ভিজিটর পাবেন।

আমাদের দেশের লোকজন আরও দুই ধরনের ডোমেইন দেখতে পায়। প্রোমো ডোমেইন আর প্রিমিয়াম ডোমেইন। আসলে প্রোমো ডোমেইন আর প্রিমিয়াম ডোমেইন কি একটু জেনে নিই।
প্রোমো ডোমেইন
আসলে  প্রোমো ডোমেইন বলে কোন ডোমেইনই নেই। আসল কথা হইল যে ডোমেইন গুলা অফারে একটু কম দামে পাওয়া যায় সেইগুলাই প্রোমো ডোমেইন নামে পরিচিত।  আর প্রোমো অর্থ প্রচার। অর্থাৎ কিছু কিছু ডোমেইন প্রোভাইডার তাদের প্রচারের জন্য বিভিন্ন ডোমেইন নাম মাত্র দামে বিক্রি করে থাকে অর্থাৎ অফার দিয়ে থাকে।  সবাই কিন্তু এই দামে বেচেনা। ;)

প্রিমিয়াম ডোমেইন
প্রিমিয়াম ডোমেইন হল যেসকল ডোমেইন এর ভালো এসইও করা থাকে অর্থাৎ যে সকল ডোমেইন ব্যবহার করে আপনি সহজেই ভিজিটর পাবেন সেগুলই প্রিমিয়াম ডোমেইন। এগুলা দ্বারা আবার .net, .com এইরকম বুঝায় না। এইগুলা নির্দিষ্ট ডোমেইন নেম। যেগুলা অনেক যত্ন করে ডোমেইনটার মালিক ডোমেইনটারে প্রিমিয়াম ডোমেইন বানাইসে। এইরকম একটা ডোমেইন হল moviewap.com যার মূল্য ৪০৯৯ ডলার। (ডোমেইনের মূল্যের সুত্রঃ http://domains.hostforest.net/domain-registration/index.php) ;)
moviewap premium domain

প্রোমো ও প্রিমিয়াম ডোমেইনের মধ্যে তফাৎ
প্রোমো ডোমেইন হল কোন ডোমেইন এক্সটেনশন মূল দাম থেকে কম দামে বিক্রি করা। অর্থাৎ ধরুন একটা ডট কম ডোমেইনের দাম ১০ ডলার কিন্তু কোন ডোমেইন প্রোভাইডার আপনাকে অফার করল একটা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে যেকোনো ডট কম ডোমেইন এর জন্য ১০ ডলারের চেয়ে কম ডলার নিবে। তখন আপনি ওই ডোমেইনকে প্রোমো ডোমেইন বলবেন। আসলে প্রোমো ডোমেইনও না বলা দরকার প্রোমো অফারে আপনি ডোমেইনটি কম দামে কিনেছেন।
আর প্রিমিয়াম ডোমেইন হল সেইসকল ডোমেইন নেম যেগুলোর অনলাইনে অনেক দাম। যে ডোমেইন গুলো সবাই পেতে চায়। ধরুন techtunes.com.bd ডোমেইনটা যদি বিক্রি করা হয় তাহলে আপনি অবশ্যই চাইবেন ডোমেইনটা কিনতে কেননা সবাই techtunes.com.bd কে চিনে আর এই ডোমেইনে আপনার ওয়েবসাইট থাকলে সহজেই আপনি ভিজিটর পাবেন। যার কারনে এই ডোমেইনটা একটা প্রিমিয়াম ডোমেইন। এখন এর আসল মালিক এই ডোমেইনের জন্য যেকোনো দাম হাঁকাতে পারে। তবে এই দামে কিন্তু আপনাকে পরবর্তী বছরে রিনিউ করতে হবেনা। রিনিউ প্রাইস সাধারণ প্রাইসই হবে । :)
অর্থাৎ যে ডোমেইন খুব বেশি জনপ্রিয় সেইটাই হল প্রিমিয়াম আর যেটা আপনি অফারে কম দামে কিনবেন সেইটা প্রোমো ডোমেইন।

অনেকেই বলে থাকে আমি প্রোমো ডোমেইন ও প্রিমিয়াম ডোমেইন বিক্রি করি। আপনি যদি ৮০০ টাকার ডোমেইন ৩০০ টাকায় কেনেন তাইলে ওইটা হবে প্রোমো ডোমেইন আর ৮০০ টাকা দিয়ে কিনলে প্রিমিয়াম হবে। আসলে যারা এধরনের কথা বলে তারা নিজেরাও জানেনা প্রোমো ডোমেইন ও প্রিমিয়াম ডোমেইন মূলত কি। আর আদৌ প্রোমো ডোমেইন বলে কিছু আছে কিনা :D

আমার কেমন ডোমেইন চাই ?
আসলে ডোমেইন কেনার ক্ষেত্রে আমরা অনেকেই কিছু না বুঝেই একেকটা ডোমেইন কিনে ফেলি পরে দেখি কাজটা ভুল হয়েছে। ভাই চোর পালানোর পরে বুদ্ধি বাড়ায়া লাভ নাই। আগে থেকেই সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে।
ডোমেইন কেনার ক্ষেত্রে কয়েকটা দিকে খুব নজর দিবেনঃ
  • আপনি ডোমেইনটা কোন ধরনের সাইটে ব্যবহার করবেন
  • আপনার ভিজিটর কোন দেশ থেকে আসবে
এখন মূল কথায় ফিরে আসি...
ডোমেইনটা কোন ধরনের সাইটে ব্যবহার করবেন তার উপর নির্ভর করে আপনার ডোমেইন নাম কি হবে। ধরুন আপনি একটা অনলাইন শপিং সাইটের জন্য ডোমেইন কিনবেন। এখন আপনি যদি তার নাম দেন techtunes কিংবা earnmoney কিংবা এই ধরনের অন্য কিছু তাহলে আপনি কিন্তু ওই ডোমেইন ব্যবহার করে তেমন একটা ভিজিটর পাবেননা । আপনাকে অবশ্যই শপিং এর সাথে মিল খায় এমন কোন ডোমেইন পছন্দ করতে হবে।
অর্থাৎ শপিং রিলেটেড একটা কিওয়ার্ড পছন্দ করতে হবে যেটা দিয়ে আপনার ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করবেন। তবে যদি আপনার নিজস্ব কোন ব্র্যান্ড থাকে তাহলে এই কিওয়ার্ড পছন্দ করার তেমন প্রয়োজন নেই। তখন আপনার ডোমেইনের নাম আপনার ব্র্যান্ডের নামেই রাখবেন।
এরপর আপনার সাইটটি কি কোন সাধারণ প্রতিষ্ঠান নাকি কোন বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান নাকি কোন ব্লগ এর ভিত্তিতে আপনার সাইটের ডোমেইন এক্সটেনশন নিন। এটা অতটা গুরুত্বপূর্ণ নয় । যেমনঃ আপনার কোন সাধারণ প্রতিষ্ঠান হলে .org আর বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান হলে .com নিতে পারেন।

এবার আসি ভিজিটরের কথায়...
আপনি যদি মনে করেন আপনার মূল ভিজিটর হবে বাংলাদেশীরা তবে আপনি .bd ডোমেইন ব্যবহার করুন। আর যদি মনে করেন মূল ভিজিটর ভারত থেকে আসবে তাহলে .in ব্যবহার করুন। এতে কিছুটা হলেও ভিজিটর বেশি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। তবে আপনার যদি মনে হয় আপনার ভিজিটররা পৃথিবীর যেকোনো দেশ হতে আসতে পারে তবে gTLD গুলো ব্যবহার করুন। সবার আগে চেষ্টা করবেন আপনি যে ডোমেইনটা চাচ্ছেন টা .com এক্সটেনশনে পান কিনা। পাইলে আগেই .com নিবেন। তবে চাইলে অন্য কোনটাও নিতে পারেন।

কার কাছে থেকে ডোমেইন নিবো ?
এইটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আপনি কার কাছ থেকে ডোমেইন নিবেন এটা আপনার একান্ত ব্যক্তিগত বিষয়। তবে কিছু বিষয় আপনাকে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে
  • আপনাকে আপনার ডোমেইন এর পুরো কন্ট্রোল প্যানেল দিচ্ছে কিনা
  • দাম অন্যদের থেকে বেশি নিচ্ছে কিনা
এখন মূল কথায় আসি...
আপনি অবশ্যই এটা সিউর হবেন যে আপনাকে ডোমেইন এর পূর্ণ কন্ট্রোল দিচ্ছে। কেননা কিছু কিছু লোক আছে যারা ডোমেইনের পুরো কন্ট্রোল দেওয়ার কথা বললেও তা দেয়না। এতে করে আপনার ডোমেইন যদি খুব ভালো একটা র‍্যাঙ্ক অর্জন করতে পারে তবে পরবর্তী বছর তা রিনিউ করতে গেলে তারা অনেক বেশি টাকা চায়। তাই অবশ্যই ১০০০% সিউর হয়ে ডোমেইন কিনবেন।
আর একটা কথা বাঙালি সবসময় সস্তা খোঁজে। আর এই সস্তার তিন অবস্থা প্রবাদ টাও বাঙালিদের সাথে তাই ভালই মিল খায়। আপনারা কোন ডোমেইন প্রোমো প্রাইসে পাইলে সেইটা কেনার জন্য অস্থির হয়া যান। তবে পরের বছর কি হইব সেইটা অনেকে ভাবেনইনা। আমি আপনাকে প্রোমো প্রাইসে ডোমেইন কিaনতে মানা করছিনা। তবে প্রোমো প্রাইসে ডোমেইন কেনার আগে জেনে নিবেন সে পরের বছর ডোমেইন রিনিউয়ালে কত টাকা নিবে। কারন দেখা যায় প্রোমোতে নামমাত্র দাম থাকলেও রিনিউয়ালের সময় দামটা তুলনামূলক বেশীই মনে হয়। তাই তাদের কাছ থেকে প্রোমো ডোমেইন নিতে বলব যাদের কাছ থেকে রিনিউ করতে খরচ কম লাগবে।

আর এই দুইটা কথা মাথায় নিয়ে ডোমেইন কিনলে আশা করি আর কোন সমস্যা হবেনা।

উপসংহার
আমার মূল কথা সব শেষ। আশা করছি পোস্টটি অনেকের খুব কাজে দেবে। আবার অনেকেই এই সম্পর্কে আগে থেকে জেনে থাকবেন। আমি আমার জানা তথ্য গুলো থেকেই এই পোস্টটা লিখেছি। ভুলত্রুটি থাকার সম্ভাবনা বেশী। আর সেগুলো শুধরাইয়া দেওয়ার দায়িত্ব আপনাদের। এই বলে পোস্টটা শেষ করছি।
পোস্টটি পছন্দ হলে শেয়ার করতে ভুলবেননা। ধন্যবাদ।

পোস্টটি প্রথম প্রকাশিত এখানে
আমার ব্লগ সুলভবিডি.কম থেকে ঘুরে আসার অনুরোধ রইল।


শেয়ার করুন
পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট