ছবিতে সফট লাইট ইফেক্ট দাও - Soft Light Effect

আবার ফিরে এলাম আরেকটা ফটোশপ টিউটোরিয়াল নিয়ে। এই টিউটোরিয়ালে আমি তোমাদের দেখাবো কিভাবে একটা ছবির উপরে হালকা সফট লাইট ইফেক্ট তৈরি করতে হয়।


প্রথমে আমাদের একটা প্রসঙ্গ মতো ছবি লাগবে। মানে হলে ভালো হয়, নাহলে এডিট করাটাও ন্যাকা ন্যাকা লাগে :p
এমনিই এডিটিং ন্যাকামির প্রতীক -_- কিন্তু যুগের ব্লগিংএর সাথে তাল মিলাতে গেলে আমারেও তাই করা লাগবে। 




তো আমরা ছবিটা ফটোশপে ওপেন করি।

ছবি ওপেন করা



ধাপঃ ১  -  ব্রাইটনেস ও কনট্রাস্ট ঠিক করা
এবার আমরা নিচের ডান পাশের লেয়ার প্যালেটের দিকে তাকাই। নিচে চার নম্বর আইকনটা হলো অনেকটা এডজাস্টারের () মতো দেখতে। এখানে ক্লিক করলে আমরা একটা ফ্লাই আউট মেনু পাবো, সেখান থেকে আমাদের কারভস (Curves...) ক্লিক করতে হবে।

Curves Select করা




ধাপঃ ২  - ব্রাইটনেস ও কনট্রাস্ট ঠিক করা - ২
এবার আমাদের প্রোপার্টিজে ক্লিক করতে হবে। চিত্রের মতো স্থানে ক্লিক করে আমরা প্রোপারটিজ ওপেন করতে পারবো। তবে কারভ না তৈরি করলে প্রোপারটীজ উইন্ডো ফাঁকা থাকবে

Properties ফ্লাই আউট প্যানেল

এখানে আমাদের কারভকে এডজাস্ট করে নিতে হবে যাতে আমরা সহজে ভালো একটা সফট লাইট ফিল্টার ছবির উপর তৈরি করতে পারি। 

Curve Adjustment
ধাপঃ ৩  -  অবজেক্ট ফোকাসিং 
এবার আবার আমরা নিচের ডান পাশের লেয়ার প্যালেটের দিকে তাকাই। নিচে চার নম্বর আইকনটা হলো অনেকটা এডজাস্টারের () মতো দেখতে। এখানে ক্লিক করলে আমরা একটা ফ্লাই আউট মেনু পাবো, সেখান থেকে আমাদের গ্র্যাডিয়েন্ট (Gradient...) ক্লিক করতে হবে।


Gradient Selection


ধাপঃ ৪  -  অবজেক্ট ফোকাসিং - ২


এবার এইরকম উইন্ডো আসবে, এবার গ্র্যাডিয়েন্টের স্যাম্পলের উপর ক্লিক করো।

গ্র্যাডিয়েন্ট উইন্ডো আসবে

এবার এখান থেকে কালার থেকে ট্রান্সপারেন্ট বা নিচের ছবির মতো অপশন সিলেক্ট করে কালো রঙ দিতে হবে।





এবার স্টাইল রেডিয়াল বা গোলাকার এবং রিভার্স করে দিয়ে দিতে হবে এবং স্কেল কমিয়ে দিতে হবে।

স্টাইল পরিবর্তন


স্কেল পরিবর্তন

ধাপঃ ৫  -  সফট লাইট তৈরি

এবার আবার আমরা নিচের ডান পাশের লেয়ার প্যালেটের দিকে তাকাই। নিচে চার নম্বর আইকনটা হলো অনেকটা এডজাস্টারের () মতো দেখতে। এখানে ক্লিক করলে আমরা একটা ফ্লাই আউট মেনু পাবো, সেখান থেকে আমাদের গ্র্যাডিয়েন্ট (Gradient...) ক্লিক করতে হবে।


Gradient Selection



এবার আমাদের নিচের মতো একটা লাইট ইফেক্টের গ্র্যাডিয়েন্ট লেয়ার তৈরি করতে হবে। এজন্যে গ্র্যাডিয়েন্ট স্টাইলকে রেডিয়াল বা গোলাকার এবং টাইপকে কালার থেকে ট্রান্সপারেন্ট গ্র্যাডিয়েন্ট করতে হবে যেটা আমি ধাপ দুইয়ে করেছি, ধাপ দুইয়ে আমি কালো রঙ ব্যাবহার করেছি, আর এখানে আমাদের সফট লাইটের জন্য কমলা রঙ ব্যাবহার করতে হবে।



এবার আমাদের এই নতুন লাইটের লেয়ারটিকে সত্যিকারের আলোর আভার মতো দেখাতে ব্লেন্ডিং মোড চেঞ্জ করে দিবো। এই মেনুটা আমরা আমাদের এই নতুন গ্র্যাডিয়েন্ট লেয়ারের উপরে লেয়ার প্যালেট থেকে ক্লিক করলে উপরে দেখতে পাবো Normal লেখা আছে, সেখানে আমরা নানা রকম ব্লেন্ডিং মোড পাবো, তো আমরা এখানে ব্লেন্ডিং মোড Screen সিলেক্ট করবো।
 


এবার আমরা এই মাত্র যে লেয়ারে Screen ব্লেন্ডিং করলাম, সেই লেয়ারে আমরা ব্রাশ সিলেক্ট করে কালো রঙ দিয়ে অতিরিক্ত আলোর আভা মুছে দেবো যাতে ছবিটা আরও রিয়েলিস্টিক হয়। 
তার আগে আমরা এই লেয়ারটিকে Ctrl + J চেপে ডুপ্লিকেট করে রাখবো।


লেয়ার ডুপ্লিকেট করা


এবার আমরা যে ডুপ্লিকেটের পর দুইটী গ্র্যাডিয়েন্ট লেয়ার পেলাম তাদের উপরেরটি হাইড করে রাখবো এবং নিচেরটিতে ব্রাশের কাজ করবো। কালো ব্রাশ করলে সাবজেক্টের ওপর আলোর আভা কমে যাবে, এতে দেখতে ভালো লাগবে। 


ব্রাশ করা

এবার আমরা লাইট লেয়ারগুলোর ব্রাইটনেস কমিয়ে বাড়িয়ে ঠিক করে নিতে পারি।





ধাপঃ ৬ - কালার কারেকশন

এবার আমরা ছবির রঙগুলো আরেকটু প্রানবন্ত করবো। এজন্যে আমাদের আরেকটা নতুন লেয়ার খুলে ব্লেন্ড মোড Screen করে দিতে হবে। 
নতুন লেয়ার খুলতে উপরের মেনু হতে Layer -> New Layer দিতে হবে বা Shift + Ctrl + N চাপতে হবে।
এবং ডান পাশের লেয়ার প্যালেট থেকে এই নতুন লেয়ারের ব্লেন্ড মোড Screen করে দেবো। 
এবং লেয়ারের অপাসিটি 28% করে দেই।




এবার আমাদের ব্রাশ সিলেক্ট করে প্রতিটি অবজেক্টের কালার পিক করে ঐ কালারের ব্রাশ করতে হবে।




এবার এই কালার কারেকশনের লেয়ারটিকে আমাদের ঐ কালো থেকে ট্রান্সপারেন্ট লেয়ারের নিচে নিয়ে যেতে হবে।



ব্যাস! আমাদের ছবিটিতে আর কিছুই করা লাগবে না, পুরোপুরি ফাইনাল!
এবার কেবল সেইভ করতে হবে।







Foizia Rachi

শেয়ার করুন

লেখকঃ

আমি তাওসিফ তুরাবি, অনলাইনাম (অনলাইন + নাম) ব্লগার তাওসিফ। এখন, ২০১৬ পর্যন্ত আমি ১৬ বছরের এক কিশোর। পড়াশোনা করি শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজে। টেক ব্লগ লিখতে ভালবাসি। সাইন্স ফিকশন আর গল্প লিখতে পছন্দ করি।  জিআর+ ব্লগের এর একজন প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন।
আমাদের একটা ওয়েব ডেভেলপার ফার্ম আছে যার নাম জিআর+ আইটি বাংলাদেশ
এছাড়া আমার ব্যাক্তিগত ব্লগ রয়েছে। আমার ফেসবুক আইডিতে আমার সাথে সর্বক্ষণ যোগাযোগ করতে পারবেন। 


পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট