শেষ হলো "ল্যাপটপ মেলা ২০১৬"

আবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হলো ল্যাপ্টপ মেলা।
এবারের স্লোগান ‘প্রযুক্তিতে মুক্তি’। এবারের মেলায় একটি মেগা প্যাভিলিয়ন, ছয়টি প্যাভিলিয়ন, ছয়টি মিনি প্যাভিলিয়ন ও ৪৪টি স্টলে দেশী-বিদেশী শীর্ষস্থানীয় গ্যাজেট ও আইটি ডিভাইজ নির্মাতা ও বিক্রয়কারী প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের সর্বশেষ বাজারে আনা ল্যাপটপ প্রদর্শন ও বিক্রি করছে।
এবারের মেলায় এসার, আসুস, ডেল, এইচপি, লেনোভো, ওয়ালটন, লাভা, অ্যাভিরা, আই-লাইফ, ইসেট, রাপ্পো, লিনেক্স, রিভসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ড অংশ নিচ্ছে।
ল্যাপটপের পাশাপাশি পাওয়া যাচ্ছে ট্যাবলেট কম্পিউটার, ইন্টারনেট সিকিউরিটি প্রোডাক্ট ও প্রয়োজনীয় স্মার্ট গ্যাজেট।
বিশেষ ছাড়, উপহারের পাশাপাশি মেলায় বেশ কয়েকটি নতুন মডেলের ল্যাপটপের মোড়ক উম্নোচন করা হচ্ছে।
গত বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে মেলার উদ্বোধন করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। 
এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকেছিলেন বেসিস সভাপতি মোস্তাফা জব্বার ও বিসিএস সভাপতি আলী আশফাক।

এবারের মেলায় পাওয়া যাচ্ছে রিভ সিস্টেমসের তৈরি রিভ অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার। এবার প্রথমবারের মতো অংশ নিয়ে ওয়ালটন তাদের তিনটি সিরিজের ল্যাপটপেই দিচ্ছে ছাড়। আই লাইফ জেইডিএয়ার ১৪ ইঞ্চি মনিটরের দাম ১৬ হাজার ৪৯৯ টাকা। কি-বোর্ডযুক্ত বিজয় ট্যাবলেট কম্পিউটার পাওয়া যাচ্ছে আট হাজার টাকায়। সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এই মেলা চলবে। মেলার টিকিটের মূল্য ৩০ টাকা। স্কুল শিক্ষার্থীদের ইউনিফর্ম থাকলে বিনামুল্যে প্রবেশ করা যাবে। বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া ল্যাপটপ মেলা আজ ১৬ ডিসেম্বর শেষ হবে।

শেয়ার করুন

লেখকঃ

আমি তাওসিফ তুরাবি, অনলাইনাম (অনলাইন + নাম) ব্লগার তাওসিফ। এখন, ২০১৬ পর্যন্ত আমি ১৬ বছরের এক কিশোর। পড়াশোনা করি শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজে। টেক ব্লগ লিখতে ভালবাসি। সাইন্স ফিকশন আর গল্প লিখতে পছন্দ করি।  জিআর+ ব্লগের এর একজন প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন।
আমাদের একটা ওয়েব ডেভেলপার ফার্ম আছে যার নাম জিআর+ আইটি বাংলাদেশ
এছাড়া আমার ব্যাক্তিগত ব্লগ রয়েছে। আমার ফেসবুক আইডিতে আমার সাথে সর্বক্ষণ যোগাযোগ করতে পারবেন। 


পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট