ডার্ক সেন্সর বানাও, অন্ধকারে নিজেই জ্বলবে আলো!

English Feed :)
কেমন আছো সবাই?
আজকের এই ইলেক্ট্রনিক্স প্রোজেক্ট দিয়েই আমার ইলেকট্রনিক্সে হাতে খড়ি। <3 p="">হ্যাঁ, এটা একটা ডার্ক সেন্সর বা অন্ধকার সংবেদী ডিভাইজ।
এই ধরণের সার্কিট বেশ সহজ হয় বানাতে। যে কেউ এটা বানাতে পারে।
কিন্তু আমাদের ব্লগের জন্য, আমি আবার এটা বানালাম।



এই সার্কিটে আমি বিসি৫৪৭ এনপিএন ট্রাঞ্জিস্টর ব্যাবহার করেছি।



LDR
How It Works

















একটা এনপিএন ট্রাঞ্জিস্টর সুইচ করতে হলে পজিটিভ চার্জ দরকার হয়।
এবং সেন্সর হিসেবে আমি এলডিআর বা লাইট ডিপেন্ডেন্ট রিসিস্টর ব্যাবহার করেছি। এটি এক ধরণের ফটো রিসিস্টর।

এলডিআর এর রেজিস্ট্যান্স বা রোধকত্ব তার ওপরের আলোর উপস্থিতির ওপর নির্ভর করে।



যখন এলডিআর এর উপরে আলোর উপস্থিতি বেড়ে যায়, তখন এলডিআর এর রিসিট্যান্স অনেক কমে শূন্যের কোঠায় চলে যায়।
আবার যখন আলো কমে যায় তখন এর রোধকত্ব বেড়ে যায়। এবং প্রায় ১ মেগা ওহমের উপরে চলে যায়।

ট্রাঞ্জিস্টরে পজিটিভ বায়াস দিতে আমি একটা ১০০ কিলো ওহমের ভলিউম বা পটেনশিওমিটার লাগিয়েছি।
এবং এলডিআর দিয়ে গ্রাউন্ড বায়স দিয়েছি।

যখন এলডিআর এর উপরে আলো পড়ে তখন রোধ কমে যায় এবং পজিটিভ চার্জ ট্রাঞ্জিস্টর সুইচ না করে গ্রাউন্ডে চলে যায়। আর এলইডি বন্ধ থাকে।
আবার এলডিআরে ছায়া পড়লে এলডিআর এর রোধ বেড়ে যায় এবং পজিটিভ চার্জ আর গ্রাউন্ডে না যেয়ে বেজ সুইচ করে। আর এলইডি জ্বলে ওঠে।
এভাবে এটা দিয়ে অটোমেটিক নাইট লাইট বানানো যাবে।
নিচে এর ডায়াগ্রাম দিয়ে দিলাম। সব শেষে ভিডিও টিউটোরিয়াল আছে।


শেয়ার করুন

লেখকঃ

আমি তাওসিফ তুরাবি, অনলাইনাম (অনলাইন + নাম) ব্লগার তাওসিফ। এখন, ২০১৬ পর্যন্ত আমি ১৬ বছরের এক কিশোর। পড়াশোনা করি শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজে। টেক ব্লগ লিখতে ভালবাসি। সাইন্স ফিকশন আর গল্প লিখতে পছন্দ করি।  জিআর+ ব্লগের এর একজন প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন।
আমাদের একটা ওয়েব ডেভেলপার ফার্ম আছে যার নাম জিআর+ আইটি বাংলাদেশ
এছাড়া আমার ব্যাক্তিগত ব্লগ রয়েছে। আমার ফেসবুক আইডিতে আমার সাথে সর্বক্ষণ যোগাযোগ করতে পারবেন। 


পূর্ববর্তী পোষ্ট
পরবর্তী পোষ্ট